1. akmolbangladesh@gmail.com : Press Times :
শিরোনামঃ
‘এম. আই. টেলিভিশন’ এর ৩য় বর্ষপূর্তি উদযাপন পারিবারিক বিরোধ ও হতাশার কারনে পিরোজপুরের নাজিরপুরে ছেলের হাতে মায়ের হত্যা : ছেলে গ্রেপ্তার “আরবি নববর্ষ” মুফতি যুবায়ের আহমাদ পিরোজপুরে খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবীতে বিএনপি’র সমাবেশ  শিক্ষক সমিতি’র পক্ষ থেকে ইন্দুরকানীর নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যানকে সংবর্ধনা বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের ৭৫ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী (প্লাটিনাম জয়ন্তী) উপলক্ষে যুবলীগের আয়োজনে বৃক্ষ রোপন  পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে সরকারি গাছ কাটা হলেও ব্যবস্থা নেয়নি বন বিভাগ কতৃপক্ষ পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে সরকারি গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ আওয়ামীলীগ নেতার বিরুদ্ধে আগামী ১ আগস্ট শুরু হচ্ছে পিরোজপুর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম ব্যাচ এর ক্লাশ শুরু নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে পিরোজপুরে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের ৭৫ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত

পুলিশে চাকরি দেয়ার নামে প্রতারণা, আটক ৪

  • আপডেট টাইমঃ শনিবার, ১০ এপ্রিল, ২০২১
  • ৯৫ মোট ভিউ

মাদারীপুরে এনএসআই’তে চাকরি দেয়ার নামে টাকা হাতিয়ে নেয়া চক্রের নারীসহ ৪ জনকে আটক করে পুলিশ দিয়েছে স্থানীয়রা। শনিবার দুপুরে সদর উপজেলার খোয়াজপুর ইউনিয়নের গোবিন্দপুরে এ ঘটনা ঘটে।

আটককৃতরা হলো, খুলনার পাইকগাছার লস্কারপুরের রবিউল ইসলামেন ছেলে মাসুদ পারভেজ (২৯), বরগুনার পাথরঘাটার জালিয়াঘাটা এলাকার আব্দুল আজিজ হাওলাদারের ছেলে শাহীন হাওলাদার (৩২), শাহীন হাওলাদারের কথিত স্ত্রী মোসাম্মদ শিরিন বেগম এবং মাদারীপুর সদর উপজেলার গোবিন্দপুর গ্রামের বাসিন্দা আব্দুল কাইউম।

পুলিশ ও ভুক্তভোগী জানায়, সদর উপজেলার গোবিন্দপুরের আব্দুল হালিমের ছেলে রনি হোসেনকে এনএসআই’তে চাকুরী দেয়ার আশ্বাস দিয়ে মোটা অংকের ঘুষ দাবি করে একই গ্রামের বাসিন্দা আব্দুল কাইউম।

প্রাথমিক পর্যায়ে রনির কাছ থেকে ২০ হাজার টাকা ঘুষ নেয় আব্দুল কাইউম। পরে শনিবার সকালে কাইউমের বাড়িতে আসা মাসুদ পারভেজ নামে ভুয়া সেনাবাহিনীর কর্নেল পরিচয়ে রনির সাথে পরিচয় করিয়ে দেয় কাইউম।

এসময় তাদের সাথে থাকা শাহীন ও শিরিন নামের অপর দুইজনকেও সেনাবাহিনীতে কর্মরত হিসেবে পরিচয় করিয়ে দেয়া হয়। সবার কথাবার্তা সন্দেহজনক মনে হলে রনি ও আশেপাশের লোকজন ৪ জনকে আটক করে সদর মডেল থানায় খবর দেয়। পরে পুলিশ গিয়ে তাদের আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

ভুক্তভোগী রনি হোসেন জানান, আমার কাছ থেকে প্রাথমিক পর্যায়ে ২০ হাজার টাকা ঘুষ নিয়েছে কাইউম। পাশাপাশি আমার মাথার চুল তারাই মেশিন দিয়ে ছোট করে কেটে দিয়েছে। এছাড়া মেডিকেল পরীক্ষাও তারাই প্রাথমিকভাবে সম্পন্ন করেছে। যা সবই ভুয়া ও প্রতারণা। বিষয়টি বুঝতে পেয়ে থানা পুলিশকে খবর দেই। পুলিশ এসে তাদের থানায় নিয়ে যায়। পরে প্রতারকদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করি।

মাদারীপুর সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. কামরুল ইসলাম মিঞা জানান, আটক ৪ প্রতারকের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। এছাড়া অজ্ঞাত আসামী রয়েছে আরও একজন। সে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে গেছে। আটককৃতদের গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হয়। আটককৃতরা গ্রামের সহজসরল মানুষকে বোকা বানিয়ে চাকুরী দেয়ার নামে টাকা হাতিয়ে নিত। এসব চক্রের কাছ থেকে সবাইকে সর্তক থাকার পরামর্শ দেয়া হচ্ছে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরোও পড়ুনঃ
© All rights reserved © 2021 | Powered By Uttoron Host
Site Customized By NewsTech.Com