• শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ০৬:২৬ পূর্বাহ্ন
  • [gtranslate]
শিরোনামঃ
পিরোজপুর জেলা দাবা লীগের পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠিত পিরোজপুর অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড মেইন রোড শাখা কর্তৃক “প্রবাসীর ঘরে ফেরা ঋণ বিতরণ” বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ভিত্তিক বই পড়া প্রতিযোগীতা এবং পুরষ্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত পিরোজপুর জেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে শিশুদের মৌলিক শিক্ষার উদ্দেশ্যে ” শেখ রাসেল পাঠশালা “উদ্বোধন পিরোজপুর জেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল কর্মপরিকল্পনা বাস্তবায়ন উপলক্ষে সুশাসন প্রতিষ্ঠার নিমিত্তে অংশীজনের অংশ গ্রহন সভা অনুষ্ঠিত পিরোজপুরে সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত পিরোজপুরে নানা কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে শেখ রাসেল দিবস পালিত পিরোজপুর মেডিকেল এন্ড ডেন্টাল স্টুডেন্ট এসোসিয়েশন এর আয়োজনে শতাধিক রোগীদের ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প পিরোজপুরে শূন্য থেকে সফল উদ্যোক্তা এম এ মুন্না

করোনায় মারা যাওয়া নারীকে গোসল করালেন কাউখালীর ইউএনও খালেদা খাতুন রেখা

admin / ১১৮ জন দেখেছেন
প্রকাশের সময়ঃ শনিবার, ১০ জুলাই, ২০২১

পিরোজপুরের কাউখালীতে উজিয়ালখান গ্রামের এক নারী করোনা আক্রন্ত হয়ে মারা গেলে তার স্বজনরা ভয়ে লাশ ধরছে না খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে গোসল করিয়ে লাশ দাফন করেন কাউখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা খালেদা খাতুন রেখা।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পিরোজপুরের কাউখালী উপজেলার উজিয়ালখান গ্রামের এক নারী রেখা আক্তার (৪৫) শুক্রবার (৯ জুলাই) দুপুরে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যান। আক্রান্ত হবার ভয়ে পরিবার বা প্রতিবেশী কেউই এগিয়ে না আসায় রাতে নির্বাহী অফিসার নিজ উদ্যোগে গোসলের ব্যবস্থা করেন। ঘণ্টার পর ঘণ্টা লাশ পড়ে থাকার পরে সুরক্ষাসামগ্রী (গাউন, হ্যান্ড গ্লাভস, মাস্ক, ক্যাপ ও বুটজুতা) পরে ধর্মীয় রীতি অনুযায়ী গোসল শেষে কাফনের কাপড় পড়ানো হয় সেচ্ছাসেবী মাহাফুজা মিলি এবং শামীমা আক্তার এর সহযোগীতায়। পরে তাকে রাত ১২টার দিকে কাউখালী উজিয়ালখান গ্রামের পারিবারিক কবরস্থানে জানাজা শেষে দাফন করা হয়েছে।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোছাঃ খালেদা খাতুন রেখার এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন সর্বস্তরের মানুষ। করোনায় মৃত নারীর লাশ গোসল করানো সংবাদটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি করে। সমাজের বিভিন্ন শ্রেণির মানুষ তাদের স্ট্যাটাসে লিখেছেন ‘মানবতার অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা খালেদা খাতুন রেখা।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার খালেদা খাতুন রেখা জানিয়েছেন, আমি খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখতে পাই যে বাড়িতে করোনা আক্রান্ত ব্যাক্তির লাশ পৌছেছে অনেক আগেই। কিন্তু পরিবার বা প্রতিবেশী কেউ আক্রান্ত হবার ভয়ে এগিয়ে আসছেন না। পরে আমি নিজ উদ্যোগে স্বেচ্ছাসেবকদের সহযোগীতায় লাশ গোসল শেষে দাফন সম্পন্ন করি। এটি মানুষ হিসেবে মানবিক দায়িত্ব। তবে করোনায় কেউ মারা গেলে সংক্রমণের ভয় থাকা ভুল ধারনা। মানুষের সচেতন হওয়া উচিত। আমরা এক কঠিন দুঃসময় পার করছি।


একই ধরনের আরও খবর
error: Content is protected !!
error: Content is protected !!