• সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ০১:২৪ পূর্বাহ্ন
  • [gtranslate]
শিরোনামঃ
শ্রেষ্ঠ উপজেলা চেয়ারম্যান ভান্ডারিয়ার মিরাজুল ইসলাম পিরোজপুরে যুদ্ধাপরাধী সাঈদীর মামলার স্বাক্ষী’র উপর হামলা পিরোজপুরে কেন্দ্রিয় ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক একরামুল হাসান মিন্টু’র মুক্তির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল রূপালী ব্যাংক লিমিটেড এর বঙ্গবন্ধু পরিষদ এর পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ পিরোজপুর সদর উপজেলার সাতটি ইউনিয়নে কর্মী সভা সম্পন্ন করেছে সদর উপজেলা ছাত্রদল পিরোজপুর জেলা দাবা লীগের পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠিত পিরোজপুর অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড মেইন রোড শাখা কর্তৃক “প্রবাসীর ঘরে ফেরা ঋণ বিতরণ” বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ভিত্তিক বই পড়া প্রতিযোগীতা এবং পুরষ্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত পিরোজপুর জেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে শিশুদের মৌলিক শিক্ষার উদ্দেশ্যে ” শেখ রাসেল পাঠশালা “উদ্বোধন পিরোজপুর জেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা

পিরোজপুরে করোনা আক্রান্তের হার শতকরা প্রায় ৩০ শতাংশ

admin / ৮২ জন দেখেছেন
প্রকাশের সময়ঃ মঙ্গলবার, ২২ জুন, ২০২১

সারা দেশের ন্যায় পিরোজপুরেও বেড়ে চলছে করোনা রোগীর সংখ্যা। জেলার ৭টি উপজেলায় প্রতিদিনই বৃদ্ধি পাচ্ছে করোনা রোগীর সংখ্যা। আজ মঙ্গলবার পিরোজপুর জেলা হাসপাতালে করোনা পজেটিভ হয়েছে ৩ জন রোগী গত কয়েকদিনে আরো ৭ জন নিয়ে মোট ১০ জন করোনা পজেটিভ এবং রোগী করোনার উপসর্গ নিয়ে আইসলিশনে ৫ জন রোগী ভর্তি রয়েছে। গতকাল পুরানো ও নতুন রোগীর ১১৭ টি স্যাম্পল পরিক্ষা করে ৩৬ জনকে পজেটিভ পাওয়া গেছে।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের মতে, এ পর্যন্ত জেলাতে আমরা ৯ হাজার ২শত ৬৮টি স্যাম্পল পরিক্ষা করে ১ হাজার ৮ শত ৯০ টি পজেটিভ পেয়েছি। এদের মধ্যে ১ হাজার ৬ শত ২৬ জন সুস্থ্য হয়েছে এবং ৩২ জন করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে। জেলাতে ২ শত ৩২ জন রোগী করোনা আক্রান্ত রয়েছে। হাসপাতালে নামমাত্র কয়েকজন ভর্তি থাকলেও বাকিরা সবাই বাড়িতে হোম আইসলিশনে রয়েছে।

মে মাসে পিরোজপুরে করোনা পরিক্ষা করা হয় ৫২৭ টি স্যাম্পল এদের মধ্যে ৮৯টি স্যাম্পল পজেটিভ আসে এবং সংক্রমনের হার ছিলো শতকরা ১৬.০৯ শতাংশ। জুন মাসে ১৫ তারিখ পর্যন্ত পিরোজপুরে করোনা পরিক্ষা করা হয় ৪১২ টি স্যাম্পল এদের মধ্যে ৮২টি স্যাম্পল পজেটিভ আসে এবং সংক্রমনের হার শতকরা ১৯.৯০ শতাংশ। গত কয়েকদিনে জেলার ৭ টি উপজেলায় করোনা সংক্রমনের হার শতকরা প্রায় ৩০ শতাংশ।

অনেক রোগী ও রোগীর স্বজনরা দাবী করছেন পিরোজপুর জেলা হাসপাতালে করোনা ওয়ার্ড থাকলেও তেমন সেবা পাচ্ছে না রোগীরা। শুধু মাত্র অক্সিজেন দিয়েই ফেলে রাখা হচ্ছে করোনা আক্রান্ত রোগীদের। এতে রোগীদের অবস্থা আরো বেশি খারাপের দিকে যাচ্ছে বলে অভিযোগ করেন স্বজনরা। তবে পর্যাপ্ত ডাক্তার না থাকার কথা স্বীকার করেছেন সিভিল সার্জন।

সিভিল সার্জন ডা: মো: হাসনাত ইউসুফ জাকী জানান, কয়েকদিন ধরে করোনা রোগীর চাপ বেশি রয়েছে। প্রতিদিনই প্রায় রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। গতকাল ১১৭ টি স্যাম্পল পরিক্ষা করে ৩৬টি স্যাম্পল পজেটিভ পাওয়া গেছে। বর্তমানে জেলাতে সংক্রমনের হার শতকরা প্রায় ৩০ শতাংশ। আমাদের করোনা ওয়ার্ডে ৩২ টি বেডের ব্যাবস্থা রয়েছে এবং সেন্টাল অক্সিজেনের ব্যবস্থা রয়েছে। প্রথম ও দ্বিতীয় ধঅপের করোনা টিকা প্রদানের পরে এবারে তৃতীয় ধাপে ৬ হাজার ডোজ করোনা টিকা পেলেও শুধুমাত্র সেবিকা শিক্ষার্থী ও পূর্বেও রেজিষ্ট্রেশন কারীদের চায়না টিকা দেয়া হচ্ছে।

 

 


একই ধরনের আরও খবর
error: Content is protected !!
error: Content is protected !!