• শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১, ১১:০১ পূর্বাহ্ন
  • [gtranslate]
শিরোনামঃ
পিরোজপুর জেলা দাবা লীগের পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠিত পিরোজপুর অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড মেইন রোড শাখা কর্তৃক “প্রবাসীর ঘরে ফেরা ঋণ বিতরণ” বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ভিত্তিক বই পড়া প্রতিযোগীতা এবং পুরষ্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত পিরোজপুর জেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে শিশুদের মৌলিক শিক্ষার উদ্দেশ্যে ” শেখ রাসেল পাঠশালা “উদ্বোধন পিরোজপুর জেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল কর্মপরিকল্পনা বাস্তবায়ন উপলক্ষে সুশাসন প্রতিষ্ঠার নিমিত্তে অংশীজনের অংশ গ্রহন সভা অনুষ্ঠিত পিরোজপুরে সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত পিরোজপুরে নানা কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে শেখ রাসেল দিবস পালিত পিরোজপুর মেডিকেল এন্ড ডেন্টাল স্টুডেন্ট এসোসিয়েশন এর আয়োজনে শতাধিক রোগীদের ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প পিরোজপুরে শূন্য থেকে সফল উদ্যোক্তা এম এ মুন্না

প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে ৩৫ হাজার পাঞ্জাবি উপহার দিলেন ভান্ডারিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আ’লীগ সম্পাদক মিরাজুল ইসলাম

admin / ১০২ জন দেখেছেন
প্রকাশের সময়ঃ শুক্রবার, ১৪ মে, ২০২১

পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে পিরোজপুরের বিভিন্ন উপজেলায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষে ৩৫ হাজার পাঞ্জাবি উপহার দিলেন ভান্ডারিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও মিরাজুল ইসলাম। মুক্তিযোদ্ধা, দলীয় নেতা-কর্মী ও বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের মাঝদের মাঝে এ উপহার পৌঁছে দেন।

আজ শুক্রবার পবিত্র ঈদুল ফিতর এর দিন পর্যন্ত জেলার ভান্ডারিয়া উপজেলায় ২৯ হাজার, মঠবাড়িয়া উপজেলায় ৪ হাজার, ইন্দুরকানী উপজেলায় ১ হাজার এবং কাউখালী উপজেলায় ১ হাজার পাঞ্জাবি উপহার হিসেবে বিতরণ কার্যক্রম শেষ হয়েছে।
এর আগে পবিত্র রমজান মাসে মিরাজুল ইসলাম ভান্ডারিয়া উপজেলার অসহায় ও কর্মহীন পরিবারগুলোর মধ্যে ইফতার ও সেহেরীর খাদ্য সামগ্রী নিয়মিত বিতরণ করেছেন।

ভান্ডারিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মিরাজুল ইসলাম মিরাজ বলেন, ঈদ উপলক্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে আমি ব্যক্তিগত ভাবে ভান্ডারিয়া, মঠবাড়িয়া, ইন্দুরকানী ও কাউখালীতে দলীয় নেতাকর্মী, মুক্তিযোদ্ধা ও এলাকার বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষদের মাঝে পাঞ্জাবি বিতরণ করেছি। করোনা পরিস্থিতিতে এই ঈদে তাদের জন্য কিছু করতে পারায় সৃষ্টিকর্তার কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। ভবিষ্যতেও সকলের পাশে থাকে কাজ করার চেষ্টা করবো।

উল্লেখ্য, গত বছর করোনার প্রথমধাপে মিরাজুল ইসলাম মিরাজ ব্যক্তিগত উদ্যোগে ভান্ডারিয়া উপজেলায় ৭০ হাজার পরিবারকে চাল, ডাল, তেল, চিড়া, বুট ও চিনিসহ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য সামগ্রী বিতরণ করেছিলেন। এছাড়া সাধারণ মানুষের মাঝে স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ, ডাক্তার ও নার্সসহ স্বাস্থ্য সেবায় নিয়োজিত ব্যক্তিদের সুরক্ষায় পিপিই, এন-৯৫ মাস্ক, কে এন-৯৫ মাস্ক সহ বিভিন্ন উপকরণ প্রদান করেছিলেন। করোনার প্রথম ধাপে ভান্ডারিয়া উপজেলার সড়কগুলোতে জিবাণুনাশক স্প্রে করার ব্যবস্থা করেছিলেন। তিনি নিজ উদ্যোগে উপজেলার পরিষদ কার্যালয়সহ প্রতিটি দপ্তর ও জনগুরুত্বপূর্ন স্থানে হাত ধোয়ার ব্যবস্থা করেছেন।
করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে রক্ষা পেতে দিনমজুর, রিকশাচালক সহ নিম্ন আয়ের শ্রমজীবীসহ সকলের স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করতে দ্রুত রোগী পরিবহনের জন্য ভান্ডারিয়া দুটি অ্যাম্বুলেন্স অনুদান করেছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান ও ভান্ডারিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মিরাজুল ইসলাম মিরাজ।

 


একই ধরনের আরও খবর
error: Content is protected !!
error: Content is protected !!