• শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ০৯:৩২ পূর্বাহ্ন
  • [gtranslate]
শিরোনামঃ
পিরোজপুর জেলা দাবা লীগের পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠিত পিরোজপুর অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড মেইন রোড শাখা কর্তৃক “প্রবাসীর ঘরে ফেরা ঋণ বিতরণ” বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ভিত্তিক বই পড়া প্রতিযোগীতা এবং পুরষ্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত পিরোজপুর জেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে শিশুদের মৌলিক শিক্ষার উদ্দেশ্যে ” শেখ রাসেল পাঠশালা “উদ্বোধন পিরোজপুর জেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল কর্মপরিকল্পনা বাস্তবায়ন উপলক্ষে সুশাসন প্রতিষ্ঠার নিমিত্তে অংশীজনের অংশ গ্রহন সভা অনুষ্ঠিত পিরোজপুরে সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত পিরোজপুরে নানা কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে শেখ রাসেল দিবস পালিত পিরোজপুর মেডিকেল এন্ড ডেন্টাল স্টুডেন্ট এসোসিয়েশন এর আয়োজনে শতাধিক রোগীদের ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প পিরোজপুরে শূন্য থেকে সফল উদ্যোক্তা এম এ মুন্না

পিরোজপুরের নেছারাবাদে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের নতুন ঘরের পিলারে ফাটল

admin / ১৭৩ জন দেখেছেন
প্রকাশের সময়ঃ মঙ্গলবার, ২০ এপ্রিল, ২০২১

বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বর্ষ উপলক্ষে পিরোজপুরের নেছারাবাদে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার দেয়া ঘরের পিলারে ফাটল ধরেছে। উপজেলার সুটিয়াকাঠি ইউপির বালিহারী গ্রামে দেখা যায় ২৬ টি টিন শেড বিল্ডিংয়ের ৮/১০ টি বিল্ডিংয়ের পিলারে ফাটল ধরেছে। এমন কি লোহার জানালা খুলে পরে গেছে। উপরে টিন বসানোর জন্য ব্যবহার করা হয়েছে খুবই নিম্ন মানের কাঠ যা তিন মাসের মধ্যেই বাকা হয়ে নস্ট হওয়ার পর্যায়ে চলে গেছে। অনেকগুলো ঘরের সামনে থাকা সিড়ি রয়েছে ভাঙ্গা অবস্থায়।
২৬ টি ঘর ঘুরে দেখা যায় ১৫ নম্বর ঘরের দক্ষিন পার্শের জানালা ভেঙ্গে পরে আছে। অধিকাংশ ঘরের পিলার চতুর্দিকে ফাটল ধরেছে এবং কয়েকটি ঘরের সামনে থাকা সিড়ি অন্যত্র সরে গেছে। ২২ নম্বর ঘরের মেঝেতে ফাটল ধরেছে। ১৯ ফিট ৬ ইঞ্চি আর ২১ ফুট ৬ ইঞ্চি ব্যসার্ধের প্রতিটি ঘর বাবদ বরাদ্ধ ১ লক্ষ ৭১ হাজার টাকা।
১২ নম্বর ঘরে থাকা মোঃ কবির হোসেন জানান, দের মাস পূর্বে আমি ৫ সদস্যের পরিবার নিয়ে প্রধান মন্ত্রীর উপহার দেওয়া ঘরে আসি। আমার ঘরের উত্তর পার্শের পিলার ফেটে ফাকা হয়ে আছে।
৯ নং ঘরের বরাদ্ধ পাওয়া ইউসুফের মা রাশিদা বেগম জানান, আমার ঘরের মেঝে ফাটল ধরেছে। কেনো এমন হলো তা বুঝলাম না। এত অল্প সময়ে এমনটা আশা করিনি।
১৬ নম্বর মোঃ আজিজুল হক জানান ঘরের মধ্যে আমি নিজের খরচায় আড়া দেই এরা টিনের নিচে যে রুয়া দিয়েছে তাও খুব নিম্ন মানের।

নেছারাবাদ উপজেলা গৃহ বাস্তবায়ন কমিটির সদস্য সচিব উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মানস মন্ডল জানান, আমাদের তথ্যাবধানেই ঘরগুলো তৈরী করা হয়েছে এবং আমি নিজেও কয়েকবার ওখানে গিয়াছি, প্রয়োজনে আবার গিয়ে দেখবো।

পিরোজপুরের জেলা প্রশাসক আবু আলী মো: সাজ্জাদ হোসেন জানান, নেছারাবাদে টিন শেড বিল্ডিংয়ের পিলারে ফাটলের বিষয়টি আমার জানা নেই এ বিষয়ে কেউ আমার কাছে কোন অভিযোগ করেননি। তবে বিষয়টি অবশ্যই সরেজমিনে গিয়ে খতিয়ে দেখা হবে।

 

 


একই ধরনের আরও খবর
error: Content is protected !!
error: Content is protected !!