• সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ০১:৪৬ পূর্বাহ্ন
  • [gtranslate]
শিরোনামঃ
শ্রেষ্ঠ উপজেলা চেয়ারম্যান ভান্ডারিয়ার মিরাজুল ইসলাম পিরোজপুরে যুদ্ধাপরাধী সাঈদীর মামলার স্বাক্ষী’র উপর হামলা পিরোজপুরে কেন্দ্রিয় ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক একরামুল হাসান মিন্টু’র মুক্তির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল রূপালী ব্যাংক লিমিটেড এর বঙ্গবন্ধু পরিষদ এর পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ পিরোজপুর সদর উপজেলার সাতটি ইউনিয়নে কর্মী সভা সম্পন্ন করেছে সদর উপজেলা ছাত্রদল পিরোজপুর জেলা দাবা লীগের পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠিত পিরোজপুর অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড মেইন রোড শাখা কর্তৃক “প্রবাসীর ঘরে ফেরা ঋণ বিতরণ” বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ভিত্তিক বই পড়া প্রতিযোগীতা এবং পুরষ্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত পিরোজপুর জেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে শিশুদের মৌলিক শিক্ষার উদ্দেশ্যে ” শেখ রাসেল পাঠশালা “উদ্বোধন পিরোজপুর জেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা

পিরোজপুরে করোনা রোগীর সংখ্যা হাজার ছাড়ালো

admin / ২৭২ জন দেখেছেন
প্রকাশের সময়ঃ শনিবার, ৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০
পিরোজপুরে করোনা রোগীর সংখ্যা হাজার ছাড়ালো

পিরোজপুরে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা হাজার ছাড়ালো। শুক্রবার পর্যন্ত জেলায় করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা এক হাজার ১০ জন। জেলায় করোনা আক্রান্ত রোগীর মধ্যে এ পর্যন্ত সুস্থ্য হয়েছেন ৭০০ জন এবং করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ২১ জনের। পিরোজপুর সিভিল সার্জন ডা. ইউসুফ হাসানাত জাকি এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
সিভিল সার্জন অফিস জানায়, জেলায় এ পর্যন্ত ৪ হাজার ৬৫৬ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা জন্য পাঠানো হয়েছে। এরমধ্যে করোনা পজেটিভ এক হাজার ১০ জন, করোনা নেগেটিভের সংখ্যা ৩ হাজার ৩৭৪টি। ৭৫টি রিপোর্ট পাওয়া যায়নি।
উপজেলা ভিত্তিক করোনা রোগীর সংখ্যায় শীর্ষে রয়েছে মঠবাড়িয়া উপজেলা। এ উপজেলায় এ পর্যন্ত কোভিড-১৯ পজেটিভ রোগীর সংখ্যা ৩০৫ জন। এছাড়া পিরোজপুর সদর উপজেলায় (সদর হাসপাতালসহ) ২৮৬ জন, ভান্ডারিয়া উপজেলায় ১০৭ জন, কাউখালী উপজেলায় ৮৪ জন, নেছারাবাদ স্বরূপকাঠী উপজেলায় ১২৩ জন, ইন্দুরকানী উপজেলায় ২৮ জন, নাজিরপুর উপজেলায় ৭৭ জন।
করোনা আক্রান্ত রোগীর মধ্যে পিরোজপুর সদর উপজেলায় মারা গেছেন ৭ জন, মঠবাড়িয়া উপজেলায় ৫ জন, নেছারাবাদ উপজেলায় ৫ জন, নাজিরপুর উপজেলায় ২ জন, ইন্দুরকানী উপজেলায় ১ জন এবং ভান্ডারিয়া উপজেলায় ১ জন।
এদিকে, পিরোজপুরে করোনা আক্রান্ত রোগী দিন দিন বৃদ্ধি পেলেও এখানকার মানুষের জীবনযাত্রা চলছে একেবারেই স্বাভাবিক। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার নেই কোন বাধ্যবাদকতা। এ বিষয়ে এখন আর নেই কোন সরকারী বা বেসরকারী প্রচার-প্রচারণও। শহর, বন্দর, হাট-বাজার, মার্কেটসহ কোন অফিস আদালতেও মানা হচ্ছেনা সামাজিক দূরত্ব। ব্যবহার করা হচ্ছে না মাস্ক। মাঝে মধ্যে প্রশাসনের পক্ষ থেকে দু/একটি ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হলেও সাধারণ মানুষের মাঝে তাতে খুব একটা সচেতনতা বাড়ছে না। বিশেষ করে যুব সমাজের মধ্যে মাস্ক না পড়ার প্রবনতা সবচেয়ে বেশী। বিশেজ্ঞদের মতামত, এ ভাবে চলতে থাকলে আগামীতে করোনা আরও ভয়াভহ আকারে ছড়িয়ে পড়তে পারে।


একই ধরনের আরও খবর
error: Content is protected !!
error: Content is protected !!