• শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ১১:২৮ পূর্বাহ্ন
  • [gtranslate]
শিরোনামঃ
পিরোজপুর জেলা দাবা লীগের পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠিত পিরোজপুর অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড মেইন রোড শাখা কর্তৃক “প্রবাসীর ঘরে ফেরা ঋণ বিতরণ” বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ভিত্তিক বই পড়া প্রতিযোগীতা এবং পুরষ্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত পিরোজপুর জেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে শিশুদের মৌলিক শিক্ষার উদ্দেশ্যে ” শেখ রাসেল পাঠশালা “উদ্বোধন পিরোজপুর জেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল কর্মপরিকল্পনা বাস্তবায়ন উপলক্ষে সুশাসন প্রতিষ্ঠার নিমিত্তে অংশীজনের অংশ গ্রহন সভা অনুষ্ঠিত পিরোজপুরে সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত পিরোজপুরে নানা কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে শেখ রাসেল দিবস পালিত পিরোজপুর মেডিকেল এন্ড ডেন্টাল স্টুডেন্ট এসোসিয়েশন এর আয়োজনে শতাধিক রোগীদের ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প পিরোজপুরে শূন্য থেকে সফল উদ্যোক্তা এম এ মুন্না

স্বাস্থ্যবিধি তোয়াক্কা না করে ভান্ডারিয়ায় হাজার হাজার লোকের জমায়েতে করোনা হতে পরিত্রাণের জন্য আনোয়ার হোসেন মঞ্জুর দোয়া ও মোনাজাত

admin / ২১৭ জন দেখেছেন
প্রকাশের সময়ঃ রবিবার, ১৯ জুলাই, ২০২০

স্বাস্থ্যবিধি তোয়াক্কা না করে পিরোজপুরের ভান্ডারিয়ায় হাজার হাজার লোকের জমায়েতে বৈশ্বিক মহামারী করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) হতে পরিত্রানে জন্য দোয়া ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে উপজেলার কলেমা চত্বরে জাতীয় পার্টি (জেপি) ভান্ডারিয়া শাখা আয়োজনে এ দোয়া ও মোনাজাত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জাতীয় পার্টি জেপি’র চেয়ারম্যান সাবেক মন্ত্রী ও পিরোজপুর-২ আসনের এমপি আনোয়ার হোসেন মঞ্জু।
এই অনুষ্ঠানে অংশ নেন আনোয়ার হোসেন মঞ্জুর বাড়িতে প্রথমবার যাওয়া তার জামাতা ও ফরিদপুর অঞ্চলের স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য মজিবুর রহমান চৌধুরী নিক্সন এমপিও। আর এই অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্যবিধি না মেনে কয়েক হাজার মানুষ অংশ নেওয়ায় তৈরি হচ্ছে করোনা ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কাও।
এলাকাবাসী জানান, দীর্ঘদিন ধরে রাজনৈতিক পরিমণ্ডলে নিশ্চুপ থাকলেও নিজ এলাকায় করোনা মহামারির ভেতরে হঠাৎ দোয়া মাহফিলের নামে শোডাউন করেন আনোয়ার হোসেন মঞ্জু। এতে কয়েক হাজার লোক অংশ নেয়। এতে আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতারাসহ বিভিন্ন দলের নেতারাও অংশ নেন।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক জেপির স্থানীয় এক নেতা বলেন, এই দোয়া মাহফিলের নামে এক ঢিলে অনেক পাখি মেরেছেন স্থানীয় সংসদ সদস্য আনোয়ার হোসেন মঞ্জু। তার দোয়া মাহফিলের নামে এই শোডাউন যত না রাজনৈতিক বা ধর্মীয় আবেগের তারচেয়েও বড় কারণ হচ্ছে এই প্রথম তার জামাতা স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য নিক্সন চৌধুরী শ্বশুরালয়ে এসেছেন। মূলত জামাতাকে নিজেদের ঘরবাড়ি দেখানোর পর স্থানীয় লোকজনের সামনে পরিচিত করানোর কাজটা দোয়া মাহফিল আয়োজনের মধ্য দিয়ে সম্পন্ন করেছেন তিনি।
জামাইবরণের এই আয়োজনও করা হয় বেশ ঘটা করেই। নিক্সন চৌধুরী আনোয়ার হোসেন মঞ্জুর মেয়ে ও ইত্তেফাকের প্রকাশক তারিন হোসেনকে বিয়ে করার পর এই প্রথম তার দাদা শ্বশুর ইত্তেফাকের প্রতিষ্ঠাতা তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়ার জন্মভিটা ভান্ডারিয়ায় আসেন। ফরিদপুর জেলার ৩ জন উপজেলা চেয়ারম্যানসহ ২১ জন ইউপি চেয়ারম্যান নিক্সন চৌধুরীর সফরসঙ্গী ছিলেন। নিক্সন চৌধুরীর সফর উপলক্ষে ব্যানার ফেস্টুনে ছেয়ে যায় ভান্ডারিয়ার অলিগলি। জেপি ও আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে রাজাপুর- ভান্ডারিয়া সড়কে ৪১টি তোরণ নির্মাণ করা হয়। করোনাকালে এমন অভিনব জামাইবরণের ঘটনাও ভান্ডারিয়াসহ সারাদেশে আলোচিত হয়।

তবে দোয়া মাহফিলের আয়োজনে অংশ নেওয়া মানুষদের স্বাস্থ্যবিধি না মেনে ঘেঁষাঘেঁষি করে দাঁড়ানোতেই তৈরি হয়েছে মারাত্মক উদ্বেগ। উপস্থিত জনতার বেশিরভাগেরই মুখে মাস্ক ছিল না। এ কারণে করোনার দোয়া মাহফিলে এসে আবার নতুন করে কেউ আক্রান্ত হয় কিনা এই উদ্বেগ এখন উপজেলার সচেতন মানুষদের মধ্যে।
অবশ্য স্থানীয় লোকজন কলেমা চত্বরে টানানো প্যান্ডেলের মধ্যে বসে ও দাঁড়িয়ে থাকলেও আনোয়ার হোসেন মঞ্জু, তার জামাইসহ অন্য অতিথি এবং স্থানীয় আওয়ামী লীগের রাজনৈতিক নেতারা ছিলেন তাদের সামনে একটি ঘরে। সেখানে ব্ক্তব্য রাখার পরে দোয়ায় অংশ নেন তারা। তবে সেখানেও সামাজিক দূরত্ব ছিল না। উপস্থিত লোকজন ও রাজনৈতিক নেতাদের অনেকেই আনোয়ার হোসেন মঞ্জু ও তার জামাইকে দেখার জন্য সে ঘরে প্রবেশ করেন এবং কাছাকাছি দাঁড়িয়ে কথোপকথন করেন।
এই অনুষ্ঠানে জেপি চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন মঞ্জু বলেন, ভান্ডারিয়ার উন্নয়নের স্বার্থে আমি এলাকায় কোনও রাজনীতি করি নাই। উন্নয়নের স্বার্থে আমি সবাইকে নিয়ে এগোতে চাই। আমি কাউকে কখনও আমার দলে যোগদান করতে বলি নাই বা বাধ্য করি নাই। আমি নিখাদ ভাবে ১৮ বছর মন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছি। মানুষ আমার কাজের মূল্যায়ন করবে।
ভান্ডারিয়ার এই এমপি বলেন, এ এলাকায় ৩৬ বছর ধরে উন্নয়ন অব্যাহত রয়েছে। আল্লাহর রহমত যতদিন আছে এ এলাকায় উন্নয়ন অব্যাহত থাকবে।
ওই দোয়ার অনুষ্ঠানে যাওয়া ভান্ডারিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ফায়জুর রশিদ খসরু জানান, ‘দোয়া মোনাজাত অনুষ্ঠানে আমিও গিয়েছিলাম। জেপি চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন মঞ্জু একটি ঘরের মধ্যে থেকে বক্তব্য দিয়েছেন। বাইরে দেড় থেকে দু হাজার লোক হয়েছে। তবে কাউকে ডেকে আনা হয়নি। অনেকদিন পরে স্থানীয় সংসদ সদস্য আনোয়ার হোসেন মঞ্জু এলাকায় এসেছেন। এ কারণে লোকজন তাকে দেখতেও এসেছেন। বিশেষ করে তার জামাই মজিবুর রহমান চৌধুরৗ নিক্সন প্রথম এসেছেন। এ কারণে তাকে দেখতেও মানুষ এসেছে।
সেখানে উপস্থিত লোকজন স্বাস্থ্যবিধি মেনেছে কিনা জানতে চাইলে তিনি কোনও মন্তব্য করেননি। শুধু বলছেন, যারা এসেছে স্বেচ্ছায় এসেছে।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে পিরোজপুরের সিভিল সার্জন হাসনাত ইউসুফ জাকী বলেছেন, মাস্ক পরে গেলে সমস্যা নাই।

দোয়া ও মোনাজাত অনুষ্ঠানে জেপি’র ভান্ডারিয়া উপজেলার শাখার আহবায়ক মনিরুল হক জোমাদ্দারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন আনোয়ার হোসেন মঞ্জুর জামাতা ও ফরিদপুর-৪ আসনের এমপি মজিবুর রহমান নিক্সন চৌধূরী, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান জেপি’র যুগ্ম আহবায়ক মাহিবুল হোসেন মাহিম, জেপি’র সদস্য সচিব আতিকুল ইসলাম উজ্জল সহ জাতীয় পার্টি জেপি ও এর অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ। সভায় ভাণ্ডারিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি ফায়জুর রশিদ খসরু, উপজেলা চেয়ারম্যান মো. মিরাজুল ইসলাম, ফরিদপুর জেলার ৩ জন উপজেলা চেয়ারম্যানসহ ২১ জন ইউপি চেয়ারম্যান উপস্থিত ছিলেন।
করোনা ভাইরাস হতে পরিত্রানে জন্য দোয়া মোনাজাত পরিচালনা করেন ভান্ডারিয়া শাহাবুদ্দিন ফাজিল ডিগ্রী মাদ্রাসার উপাধ্যক্ষ মাওলানা মো. ফারুক হোসেন।
অনুষ্ঠানে আনোয়ার হোসেন মঞ্জুর জামাতা ও ফরিদপুর-৪ আসনের এমপি মজিবুর রহমান নিক্সন চৌধুরীর ভান্ডারিয়া আগমন উপলক্ষে তাকে সোনার নৌকা ও সোনার সাইকেল উপহার দেন ভান্ডারিয়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মিরাজুল ইসলাম মিরাজ।


একই ধরনের আরও খবর
error: Content is protected !!
error: Content is protected !!