• সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ০১:৪৩ পূর্বাহ্ন
  • [gtranslate]
শিরোনামঃ
শ্রেষ্ঠ উপজেলা চেয়ারম্যান ভান্ডারিয়ার মিরাজুল ইসলাম পিরোজপুরে যুদ্ধাপরাধী সাঈদীর মামলার স্বাক্ষী’র উপর হামলা পিরোজপুরে কেন্দ্রিয় ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক একরামুল হাসান মিন্টু’র মুক্তির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল রূপালী ব্যাংক লিমিটেড এর বঙ্গবন্ধু পরিষদ এর পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ পিরোজপুর সদর উপজেলার সাতটি ইউনিয়নে কর্মী সভা সম্পন্ন করেছে সদর উপজেলা ছাত্রদল পিরোজপুর জেলা দাবা লীগের পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠিত পিরোজপুর অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড মেইন রোড শাখা কর্তৃক “প্রবাসীর ঘরে ফেরা ঋণ বিতরণ” বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ভিত্তিক বই পড়া প্রতিযোগীতা এবং পুরষ্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত পিরোজপুর জেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে শিশুদের মৌলিক শিক্ষার উদ্দেশ্যে ” শেখ রাসেল পাঠশালা “উদ্বোধন পিরোজপুর জেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা

রাজাকারের নাতী যুবলীগের সভাপতি বিরুদ্ধে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধাদের হয়রানীর অভিযোগ

admin / ২১৩ জন দেখেছেন
প্রকাশের সময়ঃ মঙ্গলবার, ৯ জুন, ২০২০

পিরোজপুরের শ্রীরামকাঠিতে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধাদের হয়রানীর ও সংখ্যালঘু নারীদের শ্লীলতাহানীতার অভিযোগ পাওয়া গেছে স্বাধীনতা বিরোধী রাজাকার সন্তান ও নাতী স্থানীয় নব্য যুবলীগ নেতাদের বিরুদ্ধে।রোববার এ বিষয়ে পিরোজপুরের জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন পিরোজপুর জেলার নাজিরপুর উপজেলার শ্রীরামকাঠী ইউনিয়নের স্থানীয় ৭ জন বীরমুক্তিযোদ্ধা।
লিখিত অভিযোগে জানাযায়, জেলার নাজিরপুর উপজেলার শ্রীরামকাঠী আওয়ামীলীগের ঘাটি হিসেবে পরিচিত হলেও বর্তমানে জামায়াত-শিবির ও বিএনপি’র রাজনীতি থেকে এসে থেকে স্থানীয় একটি ক্ষমতাশীল মহলের প্রভাবে আওয়ামীলীগ ও যুবলীগে যোগদান করে। এরপরই পিরোজপুর জেলার মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস নামক বইয়ের ৩৪৭ পৃষ্ঠায় বর্ণিত রাজাকারের তালিকায় থাকা শ্রীরামকাঠী ইউনিয়নের ৭১’র যুদ্ধাপরাধী ও রাজাকারের সন্তান ও নাতী সাবেক জামায়াত-শিবির ও বিএনপি থেকে আসা রনি হাওলাদার, মনি হাওলাদার ও মিজানুর রহমান মিঠু এলাকায় স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধাদের নানা ভাবে হয়রানীর ও সংখ্যালঘু নারীদের শ্লীলতাহানীতা করছে। এই চক্রটি স্থানীয় সাধারণ ব্যবাসীয়দের নানা ভাবে হয়রানী করছে। যাতে করে স্থানীয় সাধারণ মানুষ ও মুক্তিযোদ্ধারা এবং সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষরা নানা ভাবে হয়নারির ও নান হুমকির মাধ্যে দিন কাটাচ্ছে।
এ বিষয়ে অভিযোগকারী মুক্তিযোদ্ধারা জানান, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানে ডাকে সাড়া দিয়ে ৭১ সালে তারা মুক্তিযুদ্ধে অংশ গ্রহণ করে দেশকে স্বাধীন করছে। এরপরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার জন্য আমার সবাই আওয়ামীলীগের রাজনীতি করে আসছি। কিন্তু বর্তমানে জামায়াত-শিবির থেকে আগত নব্য কিছু আওয়ামীলীগ-যুবলীগ নেতার করনে এলাকায় বসবাসে হয়রানীর শিকার হচ্ছেন। রাজাকার নাতী শ্রীরামকাঠী ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান মিঠু হয়নারীর কারণে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ব্যবসায়ীরা নানা রকমের হয়রানীর মুখে পড়ছে। তাই এ রাজাকারের বংশধরদের হাত থেকে মৃুুক্তি পাওয়া সহ তাদের অন্যায়ের বিচারর দাবী জানিয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে।
তবে এ বিষয়ে অভিযুক্ত শ্রীরামকাঠী ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান মিঠু’র ফোনে ফোন দিলে তা বন্ধ পাওয়া গেছে।


একই ধরনের আরও খবর
error: Content is protected !!
error: Content is protected !!