• মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:৪৯ অপরাহ্ন
  • [gtranslate]
শিরোনামঃ
পিরোজপুরে জেলা তথ্য অফিসের আয়োজনে “এসো মুক্তিযুদ্ধের গল্প শুনি” এবং বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্ম ভিত্তিক কুইজ প্রতিযোগিতা পিরোজপুরে করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত ৩ শত পরিবারকে প্রধানমন্ত্রীর মানবিক সহায়তার টাকা দিলেন ডিসি দুদকের করা পৃথক ২ মামলায় মেয়র দম্পত্তিকে দুদক তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল পর্যন্ত জামিন দিয়েছে আদালত : জনসমূদ্রে পিরোজপুর পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে গৃহবধুকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ সবুজ ধারা প্রপার্টিজের বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠিত পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে ইউপি সদস্যের বাড়ীতে ডাকাতির মামলায় গ্রেফতার-১ পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে আগুন লেগে ২টি দোকান পুড়ে ছাই ৩০লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি জাতীয় প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক ফাউন্ডেশন কাউখালী উপজেলার নবগঠিত কমিটির অনুমোদন পিরোজপুরে মৃত স্বামীর সহায়-সম্পত্তি গ্রাস করার চেষ্টায় প্রতিপক্ষের মারপিট নির্যাতন থেকে রেহাই পেতে স্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন পিরোজপুরে বিএনপির ৪৩ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল

বেশি ভাঙ্গন প্রবন এলাকায় অগ্রাধিকার বিত্তিতে বেড়িবাধ নির্মান করা হবে ………….পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী

admin / ৪৭৪ জন দেখেছেন
প্রকাশের সময়ঃ বুধবার, ২৭ মে, ২০২০

বেশি নদী ভাঙ্গন প্রবন এলাকায় অগ্রাধিকার ভিত্তিতে বেড়িবাধ নির্মান করা হবে বলে জানিয়েছেন পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক। আজ বুধবার বিকেলে পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলার বলেশ^র নদীর বড় মাছুয়া লঞ্চঘাটে ভাঙ্গন কবলিত এলাকা পরিদর্শন শেষে মন্ত্রী এ কথা বলেন।  এ সময় মন্ত্রী আরো বলেন, ভৌগোলিক কারনে বাংলাদেশে নদীর সংখ্যা বেশি। আর তাই নদী ভাঙ্গনের মাত্রাও বেশি। তবে উপকূলীয় এলাকায় ভাঙ্গন রোধে সরকার অনেক বড় বড় প্রকল্প নিয়েছে। এছাড়া নদীপাড়ে গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনার স্থানে মজবুত এবং স্থায়ী বেড়িবাধ নির্মান করা হবে। অন্যান্য এলাকায় মাটির বাধ নির্মান করা হবে বলে জানান প্রতিমন্ত্রী।
জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে নদী ভাঙ্গন বেড়ে গেছে জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমরা বাধ নির্মানের নঁকশায় পরিবর্তন আনব। ফলে বেড়িবাধের উচ্চতা এবং প্রশস্ততা বৃদ্ধি করা হবে। মন্ত্রী আরও জানান, পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলার বড় মাছুয়া লঞ্চঘাট এলাকায় ৫ কোটি টাকা ব্যয়ে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে ৫০০ মিটার স্থায়ী বেড়িবাধ নির্মান করা হবে। এছাড়া পার্শবর্তী এলাকায় আরও ৭০০ কোটি টাকা ব্যয়ে আরও ৮ কিলোমিটার বেড়িবাধ নির্মান করা হবে বলেও জানান তিনি।
নদীভাঙ্গন কবলিত এলাকা পরিদর্শনকালে মন্ত্রীর সাথে ছিলেন জেলা প্রশাসক আবু আলী মোঃ সাজ্জাদ হোসেন, পুলিশ সুপার হায়াতুল ইসলাম খান, মঠবাড়িয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা উর্মি ভৌমিক এবং পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তা ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিবৃন্দ।


একই ধরনের আরও খবর
error: Content is protected !!
error: Content is protected !!